• সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 | Latest | Don’t Worried

সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 | Latest | Don’t Worried

Bangladesh
Price : ৳9,000.00
Date : August 26, 2022
Location : Bangladesh

Description

Table of Contents

সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022

বাংলাদেশ-সেনাবাহিনীর বেতন স্কেল 2022|সশস্ত্র বাহিনীর বেতন|সৈনিক এর বেতন কত

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা। আজ আমি বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 নিয়ে একটি পোস্ট লিখব। আশা করি কাজে লাগবে। আমি গুগল রিসার্চ করে আর আমার জ্ঞান কাজে লাগিয়ে সেনাবাহিনীর বেতন স্কেল নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে যাচ্ছি। আপনারা এই পোস্টে জানতে পারবেন- সেনাবাহিনীর সৈনিকের বেতন স্কেল কত? সেনাবাহিনীর সৈনিকদের সুযোগ সুবিধা,প্যারা কমান্ডোদের বেতন স্কেল, অফিসারদের বেতন, সেনাবাহিনীর ভাতাসমূহ সর্বোপরী সেনাবাহিনীর বেতন কাঠামো 2022. পুরো পোস্ট পড়ে কমেন্টে আপনাদের অনুভূতি জানাবেন।

সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022। সেনা নৌ বিমান বাহিনীর বেতন

কি কি থাকছে আজকের এই পোস্টে চলুন এক নজরে

    1. বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর বেতন স্কেল নিয়ে বিস্তারিত
    2. সেনাবাহিনীর সদস্যদের চাকুরীর সুযোগ সুবিধা
    3. সেনাবাহিনীর র‌্যাংক বা পদোন্নতি কি রকম?
    4. সৈনিকদের চাকুরীর বয়স ও তাদের সুবিধাবলি।
    5. একজন সেনা সদস্য হিসেবে আপনার কি কি দায়িত্ব ?
    6. একজন প্যারা কমান্ডোর বেতন স্কেল
    7. সেনা অফিসরাদের বেতন ভাতা
    8. সেনাবাহিনীর অন্যান্য ভাতাসমূহ ইত্যাদি বিষয়াদি



সশস্ত্র বাহিনীকে মূলত তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে-

 

১) সেনাবাহিনী

২) নৌবাহিনী

৩) বিমানবাহিনী

আবার প্রত্যোক বাহিনীকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে। এটা চাকুরীর ক্ষেত্রে এদের অভ্যন্তরীন ভাগ। ‍যেমন-

  1. কমিশন্ড অফিসার এদেরকে আবার সিও(CO) বলা হয়।
  2. জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার। এদেরকে বলা হয় জেসিও (JCO)।
  3. নন কমিশন্ড অফিসার – এদের বলা হয় এনসিও (NCO)।

এখন জেনে নেয়া যাক কারা কমিশন্ড অফিসার-

-যারা এইচ এস সি বা স্নাতক পাশ করে সরাসরি বিএমএ লং কোর্সে যোগদান করে, তারাই হলেন কমিশন্ড অফিসার।

-আর যারা সৈনিক থেকে পদোন্নতি পেয়ে উপরের পোস্টে যায়, তারাই জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার।

-যারা সশস্ত্র বাহিনীতে সৈনিক হিসেবে যোগ দেয়, তারাই নন কমিশন্ড অফিসার।

একটা কথা জেনে রাখা ভাল, নন কমিশন্ড অফিসাররা কিন্তু জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার হতে পারেন। আর জুনিয়র কমিশন্ড অফিসাররা যোগ্যতার ভিত্তিতে কমিশন্ড অফিসার পর্যন্ত হতে পারেন।

👉 আরো পড়তে পারেন- পুলিশ কনস্টেবলের কাজ কি বেতন কত?

সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022

সেনাবাহিনীর সৈনিকের বেতন 2022

সেনাবাহিনীর বেতন স্কেল বিভিন্ন গ্রেডের হয়ে থাকে। তারা বিভিন্ন গ্রেডে পদবির ভিত্তিতে বেতন পেয়ে থাকেন। নিচের চার্টটা দেখলে সহজেই সেনাবাহিনীর বেতন স্কেল 2022 সম্পর্কে ধারণা পেয়ে যাবেন।

 

“একজন সেনাবাহিনীর সৈনিক চাকুরীর শুরুতেই 9000 টাকা হারে নির্ধারিত বেতন পেয়ে থাকেন। পরে যখন ট্রেনিং পিরিয়ড শেষ হয়ে যায়, তার অন্যান্য ভাতা যোগ হয়। যেমন- ছেলেমেয়ের জন্য নির্ধারিত একটা ভাতা, পাহাড়ী এলাকায় পোস্টিং হলে ঝুকি ভাতা, চিকিৎসা ভাতা,বাড়ি ভাড়া ইত্যাদি। যদি আপনি চাকুরী যোগদানের নির্দিষ্ট সময় পর বিবাহ করেন তাহলে নির্দিষ্ট হারে এই ভাতা গুলো পাবেন। এই ভাতার মধ্যে রয়েছে- ছেলেমেয়ের শিক্ষার ভাতা। যদি একজন সৈনিক চাকুরী শুরুতে বেসিক 9000 টাকা হারে চাকুরী শুরু করেন, তবে তিনি বেসিকের দ্বিগুন মানে 18000 টাকা হারে বেতন পাবেন।”

 

 

সেনাবাহিনীর-অফিসারস-এবং-সৈনিকদের-বেতন-কাঠামো-2

সেনাবাহিনীর ল্যান্স কর্পোরালদের বেতন স্কেল ২০২২

সেনাবাহিনীর বেতন স্কেল 2022 আলোচনা করতে গেলে ল্যান্স কর্পোরালদের বেতন নিয়ে কথা বলতেই হয়। ল্যান্স কর্পোরালরা সৈনিক থেকে পদোন্নতির মাধ্যমে আসে। একজন ল্যান্স কর্পোরাল সৈনিক থেকে একগ্রেড উপরে বেতন পায়। সৈনিক যেমন – ১৮ তম গ্রেডে ৯০০০ টাকা হারে বেতন পায়,তেমনি ল্যান্স কর্পোরালরা ১৭ তম গ্রেডে বেতন পায়। সাথে প্রতি বছর ৫% ইনক্রিমেন্টতো আছেই। মোট কথা তাদের শুধু একগ্রেড উন্নতি হয়। বাকি সুযোগ সুবিধা সৈনিকের মতই হয়। তবে সেনাবাহিনীর ল্যান্স কর্পোরালরা সৈনিকদের থেকে একধাপ উপরে। তাই সৈনিকরা তাদেরকে স্যার বলে সম্মোধন করে। এদের বেতন বেসিক ১০২০০ থেকে শুরু সর্বোচ্চ ২৪৬৮০ টাকা পেয়ে থাকে। মাসিক বেতন হলো বেসিকের দ্বিগুন পরিমান।

সেনাবাহিনীর কর্পোরালদের বেতন ২০২২

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন এনসিও। মানে নন কমিশন্ড অফিসার। এরা শুরুতেই ১১০০০ টাকা বেসিক পেয়ে থাকেন। সেনাবাহিনীর বেতন স্কেল 2022 অনুযায়ী একজন কর্পোরাল সর্বোচ্চ ২৬৪৮০ টাকা বেসক পর্যন্ত যেতে পারেন। তাহলে অন্যান্য ভাতাসহ তাদের বেতন মাসিক বেসিক যত তার ডাবল। মানে যদি বেসিক হয় ২৬০০০ টাকা তাহলে মাসিক বেতন হবে ৫২০০০ টাকার মত।

সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট এর বেতন ২০২২

একজন সেনাবাহিনীর সার্জেন্টকে বলা হয় এনসিও অফিসার  সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 মোতাবেক একজন সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট এর বেতন স্কেল ১৬০০০ টাকা বেসিক থেকে সর্বোচ্চ ৩৮৬৪০ টাকা পর্যন্ত। আর সর্বসাকুল্যে মাসিক বেতন বলতে গেলে সর্বনিম্ন ৩২০০০টাকা ও সর্বোচ্চ ৬৬০০০ টাকার আশে পাশে।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার এর বেতন স্কেল 2022

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন ওয়ারেন্ট অফিসার হলো সৈনিকের পদোন্নতির সর্বোচ্চ পর্যায়। মানে একজন সেনাবাহিনীর সৈনিক পদোন্নতি পেয়ে সর্বোচ্চ মাস্টার্ণ ওয়ারেন্ট অফিসার হতে পারে। তবে এটি হতে তাদের অপেক্ষা করতে হয় অনেক বছর। সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 এর সর্বশেষ রুলস অনুযায়ী একজন ওয়ারেন্ট অফিসার ১০ তম গ্রেডে বেতন পায়। তারা হলেন সরকারি দ্বিতীয় শ্রেণীর অফিসার। বাংলাদেশ সরকারের সেনাবাহিনীর গুরুত্ব পোস্টে একজন ওয়ারেন্ট অফিসার কাজ করেন।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার এর বেতন 2022

সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 অনুসারে ২২২৫০ টাকা থেকে ৫০২৫০ টাকা হারে একজন সেনাবাহিনীর সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসারের বেসিক। আর আগেই বলেছি বেসিকের ডাবল হলো মাসিক বেতন। তবে এক্ষেত্রে চাকুরীর বয়স ও কতবার ইনক্রিমেন্ট পেল সেটাও নির্ভর করে। বেসিক এর সাথে আনুষাঙ্গিক ভাতা যোগ করে মাসিক বেতন নির্ধারণ করা হয়।

সেনাবাহিনীর মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার এর বেতন 2022

সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 অনুসারে একজন মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনীর সার্ভিস রুলস অনুসারে সর্বনিম্ন ২২৫০০ টাকা ও সর্বোচ্চ ৫৩২৫০ টাকা বেসিক পেয়ে থাকেন। এখানে বলা ভাল যে, একজন মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসারকে বলা হয় সর্বোচ্চ লেভেলের সৈনিক। মানে এটা সেনাবাহিনীর সৈনিকদের সর্বোচ্চ পদ। এই পদের পর একজন সৈনিক অবসরে যান।

👉আরো পড়ুন- শিক্ষামন্ত্রনালয়ের কম্পিউটার ল্যাব অপারেটরদের কাজ কি?

সেনাবাহিনীর সৈনিক এর সুযোগ সুবিধা

সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022

আসুন জেনে নেয়া যাক সেনাবাহিনীর একজন সৈনিক এর সুযোগ সুবিধাবলি‌‌>>>

      1. 👉👉 একজন রিক্রুট সৈনিক হিসেবে জয়েনের পর থেকে তার দায়দায়িত্ব বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নেয়।
      2. 👉👉 সৈনিক এর খাবার,পোশাক সব সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে বিনামূল্যে সরবরাহ করা হয়।
      3. 👉👉 একজন সেনার পরিবারের জন্য নির্দিষ্ট হারে প্রতিমাসে সরকার কর্তৃক ভুর্তুকিহারে রেশনের ব্যবস্থা করা হয়।
      4. 👉👉 একজন সেনাবাহিনীর সৈনিক কর্মজীবন ১/২ বার বা কোন কোন ক্ষেত্রে এর বেশি সংখ্যকবার জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে যোগ দিতে পারেন।
      5. 👉👉 জাতিসংঘ মিশনে যাবার সময় একজন সেনাকে সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 এর অনুসারে দেশ থেকে বেতন দেয়া হয়,সাথে জাতিসংঘ কর্তৃকও তারা প্রতি মাসে খোরপোষ ভাতা পেয়ে থাকেন। আর মিশন শেষে এককালীন সর্বোচ্চ ২০-২২ লক্ষ টাকা পেয়ে থাকেন।
      6. কর্মজীবনে একজন সেনা প্রতিটি ক্ষেত্রে নানান ভাতা ভোগ করে থাকেন।



একজন সেনাবাহিনীর সৈনিক কত বছর চাকুরী করতে পারেন?

এই প্রশ্নটি❓ সবার মণে ঘোরপাক খাচ্ছে। আমাকে মেসেজে,কমেন্টে বহুবার আমার সাইটের ভিজিটরগন এই প্রশ্নটি করেছেন। সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 আলোচনার প্রসঙ্গে এই প্রশ্নটা চলে আসে।

একজন সেনাবাহিনীর সৈনিক বাংলাদেশ আর্মি সার্ভিস রুলস অনুযায়ী ২২ বছর চাকুরী করতে পারেন।

যেখানে একজন পুলিশ সদস্য ও একজন বিজিবি জোওয়ান তাদের ৬০ বছর বয়সফুর্তি হওয়া পর্যন্ত জব করতে পারেন, সেনাবাহিনীর জন্য ভিন্ন কেন?

তার কারণ একটাই। সশস্ত্র বাহিনীর আইনকানুন অনেক স্ট্রিক্ট। তাদের জীবনটা সারাক্ষণ ট্রেনিং,প্যারাড,দৌড়ের উপর থাকে। অন্যদিকে পুলিশ বিজিবির জওয়ানরা একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ট্রেনিং করে পার্মানেন্ট ভাবে কোন থানায় বা বর্ডারে বদলি হয়। অন্যদিকে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা সারাদেশের ক্যান্টনমেন্টে বিচরণ করেন। বলতে পারেন সেজন্য বাকি জীবনটা একটু উপভোগ্য করতেই একজন সৈনিককে ২২ বছর পর অবসরে পাঠানো হয়।

-আশা করি বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর বেতন স্কেল 2022 সম্পর্কে আইডিয়া পেয়েছেন। আর কি বিষয়ে জানতে চান সেটা কমেন্টনে জানুন। ধন্যবাদ।

Mention Becbo.com when calling seller to get a good deal

Write a Review
Profile Picture
admin
Dealer

Send Messages

Send Message
Safety tips for deal
  1. Use a safe location to meet seller
  2. Avoid cash transactions
  3. Beware of unrealistic offers
 - 
Bengali
 - 
bn
English
 - 
en
Top